কুমিল্লা
বুধবার,২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৩ আশ্বিন, ১৪২৯ | ১ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪
শিরোনাম:
কুমিল্লায় ৭১১ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দিলেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন ইসলামী ব্যাংকের ফাস্ট এ্যসিসস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নাজমুলের পদোন্নতি লাভ ‘গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন তাহসিন বাহার কুমিল্লার সাবেক জেলা প্রশাসক নূর উর নবী চৌধুরীর ইন্তেকাল কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ লাকসামে বঙ্গবন্ধু ফুটবল গোল্ডকাপে পৌরসভা দল বিজয়ী কুসিক নির্বাচন: এক মেয়রপ্রার্থীসহ ১৩ জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান স্বাস্থ্য সচেতনতার লক্ষ্যে কুমিল্লায় ঢাকা আহছানিয়া মিশনের মেলার আয়োজন কুসিকে মেয়র প্রার্থী রিফাতের নির্বাচন পরিচালনায় ৪১ সদস্যের কমিটি

কুসিক নির্বাচন:

কাউন্সিলর প্রার্থী কিবরিয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন জামায়াত নেতা কাজী গোলাম কিবরিয়া (মিষ্টি কুমড়া)। তার বিরুদ্ধে হলি আর্টিজানে হামলায় ব্যবহৃত অস্ত্র সরবরাহের অভিযোগ তুলেছেন আরেক কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হোসেন ছোটন। শুক্রবার (৩ জুন) সকালে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ছোটন (লাটিম)।

সংবাদ সম্মেলনে ছোটন বলেন, কাজী গোলাম কিবরিয়া কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ার পর থেকে বহিরাগত নিয়ে শোডাউন করছে। দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমার নেতাকর্মীদের হামলা করছে।

তার অনুসারীরা গত বুধবার রাতে হামলা চালিয়ে আমার চার সমর্থকে কুপিয়ে আহত করেছে। বর্তমানে তারা কুমিল্লা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি মামলাও করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, কিবরিয়া একজন অস্ত্র ব্যবসায়ী। বিষয়টি গণমাধ্যমগুলো ফলাও করে প্রকাশ করে। কিবরিয়ার এই বিষয়গুলো নির্বাচন কমিশনকে আমি মৌখিকভাবে জানিয়েছি। তারা আমাকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলছে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে কাউন্সিলর প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া বলেন, হলি আর্টিজানের হামলার ঘটনায় আমি অস্ত্র সরবরাহ করেছি কথাটা ভিত্তিহীন। বুধবার রাতে আবুল হোসেন ছোটনের লোকজন উল্টো আমার সাত সমর্থককে কুপিয়ে যখম করেছে।

আগামী ১৩ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনের শর্ত মেনে প্রার্থীরা প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। ১৫ জুন সকাল ৮টা থেকে ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দেবেন নগরবাসী।

এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, কাউন্সিলর পদে ১০৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ সিটিতে মোট ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ৯১৮। তাদের মধ্যে নারী ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৯২। পুরুষ ভোটার এক লাখ ১২ হাজার ৮২৬।

আরও পড়ুন